আজ ভোটপ্রচার শেষ, ভোটে নিরাপত্তা থাকবে তিন পর্যায়ে

আজ ভোটপ্রচার শেষ, ভোটে নিরাপত্তা থাকবে তিন পর্যায়ে

আজ শনিবার বিকেল ৫টায় পঞ্চায়েত ভোটের প্রচার শেষ হলো। আজ বিকেল ৫ তার পর থেকে আর কোনো রকমেরই প্রচার করা যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। সেই সঙ্গে কমিশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মোট ৪৭ হাজার ৪৫১টি বুথের মধ্যে ১৮ শতাংশ স্পর্শকাতর বলে চিহ্নিত হয়েছে। এর মধ্যে ১১ শতাংশ অতি স্পর্শকাতর এবং সাত শতাংশ কম স্পর্শকাতর। অর্থাৎ ৮ হাজার ৬৪০টি বুথ স্পর্শকাতর বলে চিহ্নিত করা হয়েছে।

এক্ষেত্রে প্রতি বুথেই একজন করে সশস্ত্র পুলিশ এবং একজন করে লাঠিধারী কনস্টেবল থাকবেন। যে সব ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে দুটি বুথ থাকবে, সেখানে দু’জন সশস্ত্র পুলিশ ও দু’জন লাঠিধারী কনস্টেবল থাকবে। তিনটি বুথের ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে থাকবে তিনজন সশস্ত্র পুলিশ এবং তিনজন লাঠিধারী কনস্টেবল। অর্থাৎ ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে যে ক’টি বুথ থাকবে, সেই সংখ্যায় সশস্ত্র পুলিশ এবং লাঠিধারী কনস্টেবল থাকবে। উল্লেখ্য, এবারের পঞ্চায়েত ভোটে সর্বাধিক ছ’টি বুথের ভোটগ্রহণ কেন্দ্র থাকছে। 

তবে রাজ্য নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, পঞ্চায়েত ভোটে তিন পর্যায়ের নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। প্রাথমিক স্তরে বুথে, দ্বিতীয় স্তরে সেক্টর অফিস এবং তৃতীয় স্তরে ক্যুইক রেসপন্স টিম (কিউআরটি) থাকবে।

উল্লেখ্য, ভোটের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে শুক্রবার বিকেল চারটে নাগাদ এক উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেন রাজ্য নির্বাচন কমিশনার অমরেন্দ্রকুমার সিং। সেই বৈঠকে ছিলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব অত্রি ভট্টাচার্য, রাজ্য পুলিসের ডিজি সুরজিৎ কর পুরকায়স্থ, এডিজি (আইনশৃঙ্খলা) অনুজ শর্মা। সেখানেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।