ঝড় আর তুমুল শিলাবৃষ্টির মধ্যেই সোমবার পাহাড়ে পৌছলেন মুখ্যমন্ত্রী

ঝড় আর তুমুল শিলাবৃষ্টির মধ্যেই সোমবার পাহাড়ে পৌছলেন মুখ্যমন্ত্রী

সোমবার বিকেলে ঝড় ও তুমুল শিলাবৃষ্টির মধ্যে পাহাড়ে পৌছলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে বানিজ্য সম্মেলনে যোগ দেবেন মুখ্যমন্ত্রী। উল্লেখ্য, এটিই পাহাড়ে প্রথম বাণিজ্য সম্মেলন। গোর্খাল্যান্ড টেরিটোরিয়াল আডমিনিস্ট্রেশন (জিটিএ) সূত্রের খবর, মার্চের ঝোড়ো আবহাওয়ার কথা মাথায় রেখেই ম্যালে দু’দিনের শিল্প সম্মেলনের জন্য শক্তপোক্ত মঞ্চ গড়া হয়েছে। অতিথিরা তো বটেই, সাধারণ পাহাড়বাসীরা যেখানে বসবেন বা দাঁড়াবেন, তারও অনেকটা অংশ ছাউনিতে ঢাকা। জিটিএ থেকে এক হাজার ছাতা আলাদা করে রাখা হয়েছে।

এ দিন বেলা ৩টে নাগাদ বাগডোগরা বিমানবন্দরে পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী। সঙ্গে ছিলেন সঞ্জয় বুধিয়া, ময়াঙ্ক জালান, উমেশ চৌধুরী, রুদ্র চট্টোপাধ্যায়রা। শিলিগুড়ি থেকে সিআইআই-এর প্রতিনিধিরা মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে যোগ দেন। পথে তাঁকে স্বাগত জানান স্থানীয় লোকজনেরা। তারা মুখ্যমন্ত্রীকে বলেন, পাহাড়ে শিল্প চাই। জবাবে তিনি আশ্বাস দিলেন ঠিকই, একই সঙ্গে বলেন, পাহাড় শান্ত থাকলেই শিল্প আসবে। সব ঠিক থাকলে পর্যটন, চা, তথ্য-প্রযুক্তি, ফুল-ফলভিত্তিক শিল্পে বিনিয়োগ আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

উল্লেখ্য, শুধু কলকাতার ব্যবসায়ীরাই নন, শিল্প সম্মেলনে যোগ দিতে ডাকা হয়েছে কালিম্পং, কার্শিয়াং, মিরিকের ব্যবসায়ীদেরও।