ফোন ট্যাপ হচ্ছে, কথা থাকলে হোয়াটস অ্যাপ কলে বলুন, কর্মীদের উদ্দেশ্যে বার্তা কৈলাসের

ফোন ট্যাপ হচ্ছে, কথা থাকলে হোয়াটস অ্যাপ কলে বলুন, কর্মীদের উদ্দেশ্যে বার্তা কৈলাসের

ফোনালাপ ছড়িয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাই এবার যথেষ্ট সতর্ক বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তাঁর নির্দেশ, ফোন ‘ট্যাপ’ হচ্ছে। পার্টির কোনও আলোচনা করতে হলে হোয়াটসঅ্যাপ কল অথবা দেখা করে সাক্ষাতে বলুন। দলীয় বৈঠকে রাজ্য নেতাদের এভাবেই সতর্ক করলেন তিনি। 

বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কলকাতার এলগিন রোডে রাজ্য পদাধিকারীদের নিয়ে বৈঠক করেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়, শিবপ্রকাশ, অরবিন্দ মেনন, দিলীপ ঘোষ, রাহুল সিনহা, মুকুল রায়। সূত্রের খবর, রুদ্ধদ্বার বৈঠকে কৈলাস রাজ্য নেতাদের বলেন, ''পার্টির ভিতরের কথা, কোনও রাজনৈতিক কথাবার্তা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করা বা বলার থাকলে হোয়াটসঅ্যাপ কল করুন। সাক্ষাতে আলোচনা করুন। ফোনে কল করবেন না। পুলিশ ফোন ট্যাপ করছে বলে আমার কাছে খবর আছে।'' 

দলীয় সূত্রে খবর, কোন কোন নেতার ফোন ট্যাপ হচ্ছে তাঁদের একটা তালিকাও কৈলাস বৈঠকে দেখিয়েছেন। এদিকে, বৃহস্পতিবারের বৈঠকে মূলত লোকসভা ভোটের আগে সংগঠন মজবুত করার বিষয়টি নিয়েই আলোচনা হয়েছে। জানা গিয়েছে, গতকালের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, এনআরসি কেন জরুরি তা বাংলার মানুষকে বোঝানো এবং নাগরিকত্ব বিল নিয়ে লাগাতার প্রচার চলবে। লোকসভা নির্বাচন পর্যন্ত বাংলায় স্থায়ীভাবে থাকবেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়, শিবপ্রকাশ ও অরবিন্দ মেননরা। 

দলীয় সূত্রে খবর, শরৎ বোস রোডে পবন রুইয়ার একটি বাড়ি আগামী ৬ মাসের জন্য ভাড়া নিয়েছে বিজেপি। যেখানে কৈলাস বিজয়বর্গীয় থাকবেন। আর এক কেন্দ্রীয় নেতা শিবপ্রকাশ বেলেঘাটায় দিলীপ ঘোষের ফ্ল্যাটে থাকবেন।