রাতের অন্ধকারে পাঁচিল টপকে পলাতক ৩ বাংলাদেশী বন্দি, উত্তেজনা আলিপুর সেন্ট্রাল জেলে

রাতের অন্ধকারে পাঁচিল টপকে পলাতক ৩ বাংলাদেশী বন্দি, উত্তেজনা আলিপুর সেন্ট্রাল জেলে

রাতের অন্ধকারে সংশোধনাগারের পাঁচিল টপকে পালালো তিন বন্দী। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল রাতে আলিপুর সংশোধনাগারে। জানা গিয়েছে, ওয়াচ টাওয়ার লাগোয়া পাঁচিল টপকে জেল থেকে পালিয়েছে ওই ৩ বিচারাধীন বন্দি। পলাতকরা বাংলাদেশি। আজ রবিবার সাতসকালে বিষয়টি জানাজানি হতেই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে আলিপুর সেন্ট্রাল জেলে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান কলকাতা পুলিশের পদস্থ আধিকারিকরা। জেলে রাতে ডিউটিতে থাকা নিরাপত্তারক্ষীদের বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে সিসিটিভি ফুটেজ। এই ঘটনায় ফের প্রশ্নের মুখে আলিপুর সেন্ট্রাল জেলের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও নজরদারি।
কলকাতার আলিপুর সেন্টাল জেলেই বন্দি সন্দেহভাজন আইএস জঙ্গি মুসা। গত মাসেই জেলের ভিতর এক ওয়ার্ডেনের গলায় ধারালো অস্ত্রের কোপ মেরেছিল সে। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই আবার এই ঘটনা। ডাকাতি, বেআইনি অনুপ্রবেশ, অপহরণের মতো গুরুতর মামলায় অভিযুক্ত ছিল তারা। আলিপুর সেন্টাল জেল সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার নির্দিষ্ট সময়েই বন্দিদের রাতের খাবার দেওয়া হয়েছিল। খাওয়া-দাওয়ার পর, জেলের ডানদিকের পাঁচিল টপকে পালিয়ে যায় ৩ জন বন্দি। রীতিমতো পরিকল্পনামাফিক বন্দিদের চাদরকে দড়ি হিসেবে ব্যবহার করে পাঁচিল টপকেছে তারা। উল্লেখ্যযোগ্য বিষয় হল, জেলের যে পাঁচিল টপকে পালিয়েছে ওই ৩ জন আসামি, সেই পাঁচিলের কাছেই রয়েছে একটি ওয়াচ টাওয়ার। সেখানে রাতভর ডিউটিতে ছিলেন জেলের নিরাপত্তারক্ষীরা। কিন্তু তারা কেন বিষয়টি জানতে পারলেন না, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। ইতিমধ্যেই রাতের ডিউটিতে থাকা নিরাপত্তারক্ষীদের বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে। সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখার কাজ চলছে।