বাইকের গতি বাড়ালে এবার ব্যবস্থা নেবে কলকাতা পুলিশ

বাইকের গতি বাড়ালে এবার ব্যবস্থা নেবে কলকাতা পুলিশ

কলকাতার রাস্তায় বাইকের দৌরাত্মির সঙ্গে বেড়েছে গাড়ির গতিবিধি, এবার আইন ভেঙে জোরে গাড়ি চালালে বিশেষ সেই ক্যামেরায় উঠে যায় ছবি। এর পর বাড়িতে চলে যায় অভিযোগপত্র। জরিমানা দিয়ে তবে ছাড় মেলে। বর্তমানে জোরে গাড়ি চালানোয় সর্বোচ্চ জরিমানা ৫০০ টাকা। তবে মোটরভেহিকলস আইনে কোনও কারাবাসের সুযোগ নেই। তাই বহু ক্ষেত্রেই বার বার এই অপরাধ করেও জরিমানা দিয়ে ছাড় পেয়ে যান দোষীরা।

ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৭৯ ধারা অনুসারে বেপরোয়া গাড়ি চালানোর দায়ে দোষী প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ ছ-মাসের জেল হতে পারে।

শুধু জেলই নয়, তিন মাসের জন্য বাতিল হয়ে যাবে লাইসেন্স। ইতিমধ্যে বিভিন্ন ক্যামেরায় মোট ৪২ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে বেপরোয়া গাড়ি চালানো অভিযুক্ত হিসেবে। নজর রাখা হয়েছে ১০০টি গাড়ির উপর। বারবার গতিসীমা লঙ্ঘন করলেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বার বার গতিসীমা ভাঙছে এমন গাড়ির ওপরে চলছে নজরদারি। কলকাতা পুলিসের তরফে জানানো হয়েছে, শহর জুড়ে বিভিন্ন জায়গায় লাগানো হয়েছে স্পিড ট্র্যাপ। গতিসীমা লঙ্ঘন করলেই তাতে উঠে যাবে ছবি।